ঢাকা রোববার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ৯ আশ্বিন ১৪২৯

স্থাপত্যশিল্পের অপূর্ব নিদর্শন দেবহাটার মডেল মসজিদ এখন উদ্বোধনের অপেক্ষায়

সেন্ট্রাল ডেস্ক
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০১:০৮
আপডেট: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০২:৩৬
স্থাপত্যশিল্পের অপূর্ব নিদর্শন দেবহাটার মডেল মসজিদ এখন উদ্বোধনের অপেক্ষায়

মোজাফ্ফর রহমান : সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলায় উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছে মডেল মসজিদ। প্রায় ৪৩ শতক জমির ওপর ১৪ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মান করা হয়েছে মসজিদটি। দ্রুত সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হবে দেবহাটা উপজেলার দৃষ্টিনন্দন আধুনিক কারুকার্যময় মডেল এ মসজিদটি। স্থাপত্যশিল্পের এক অপূর্ব নির্দশন এ মডেল মসজিদটি। প্রতিদিন বিভিন্নস্থান থেকে মানুষ আসছেন মসজিদ দেখার জন্য। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ২য় বৃহত্তর প্রকল্পের আওতায় সাতক্ষীরার জেলার দেবহাটা উপজেলা চত্বরে গণপূর্ত বিভাগ সু-নিপুন কারিগরি দক্ষতার সাথে মডেল মসজিদটি নির্মান কাজ সম্পন্ন করেছে। এখন চলছে ধোয়া মুছা আর রংয়ের কাজ। এখন শুধু প্রধানমন্ত্রীর হাতদ্বারা আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছে দৃষ্টিনন্দন তিন তলা মডেল মসজিদটি। সাতক্ষীরা গণপূর্ত বিভাগ দেবহাটা উপজেলা চত্বরে ৪৩ শতক জমি উপর ১৪ কোটি টাকা ব্যয়ে এরই মধ্যে ভবন সহ মসজিদের অভ্যন্তরে নামাজের জায়গা সহ ইসলামী শিক্ষার জন্য যে সব একাধিক রুম থাকা দরকার তা সবই সম্পূর্ন করেছেন। মসজিদটিতে একটি বড় গুম্ভুজ বা মিনার ও ৩ টি ছোট গুম্ভুজ এবং একটি উচ্চ মিনার আছে যা দূর থেকে মানুষের দৃষ্টি আকর্ষন করে। আধুনিক শিতাতাপ নিয়ন্ত্রিত এই তিনতলা মসজিদ ভবনে ১ম তলায় আছে পাকিং, ঈমাম প্রশিক্ষণ হল রুম, মৃত্যু ব্যাক্তির গোসল করানো কক্ষ, জেনেরটর ব্যবস্থা। ২য় তলায় নামাজের জায়গা, বিদেশি মেহমানদের থাকার কক্ষ, ইমাম, মোয়াজ্জেমের থাকার পৃথক কক্ষ. ইসলামিক সংস্কৃতিক কেন্দ্র, ওজুখানা, টয়লেট। ৩য় তলায় নারি-পুরুষের আলাদা আলাদা নামাজের জায়গা, হজ্বযাত্রীদের প্রশিক্ষন ও রেজিট্রেশনের ব্যবস্থা, ইসলামি গবেষনা কেন্দ্র ও লাইব্রেরী, হিফজুল কোরান ও উচ্চ শিক্ষার ব্যবস্থা, কেন্দ্রিক দারুল আরকাম এবতেদায়ী মাদ্রাসা, দীন দাওয়াতী কার্যক্রম পরিচালনার জন্য অডিটোরিয়াম, উপজেলা ইসলামিক ফাউন্ডেশনের অফিস সহ ইসলামি কার্যক্রমের জন্য একাধিক কক্ষ আছে । মসজিদটিতে পাকিং, ঈমাম প্রশিক্ষণ হল রুম, মৃত্যু ব্যাক্তির পোসল করানো, বিদেশি মেহমানদের থাকার কক্ষ, ইসলামিক সংস্কৃতিক কেন্দ্র সহ আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সহ উপজেলা পর্যায়ে সুন্দর দৃষ্টি নন্দন আধুনিক মডেল মসজিদ নির্মান করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ধণ্যবাদ জানিয়েছেন এলাকাবাসি। দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ বি এম খালিদ হোসেন জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশে ৫৬০ টি মডেল মসজিদ নির্মান করে দিচ্ছেন। তার মধ্যে দেবহাটা উপজেলায় বর্তমান সরকার এত সুন্দর একটি মসজিদ নির্মান করেছেন যা এই এলাকায় ধর্মপ্রান মুসলমানরা এখানে নামাজ পড়তে পারবেন। এখানে সুবিশাল দৃষ্টিনন্দন মসজিদটি হওয়ায় এলাকার মানুষ আনন্দে উদ্বেলিত। মসজিদটি সবচেয়ে বড়স্থাপনা এই উপজেলায়। তিনি বলেন এটি সবচেয়ে দর্শনীয় স্থান হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। প্রতিদিন সাধারন মানুষ নান্দনিক কারুকার্যময় এ মডেল মসজিদটি দেখতে আসছেন। সাতক্ষীরা গণপূর্ত বিভাগ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু হায়াত মুহাম্মদ শাকিউল আযম জানান, প্রায় ১৪ কোটি টাকা ব্যায়ে দেবহাটায় মডেল মসজিদ নির্মান করা হয়েছে। ইতিমধ্যে নির্মান কাজ ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। স্থাপত্যশিল্পের এক সুনিপুন নিদর্শন এ মডেল মসজিদটি। ধর্মপ্রানমুসলমানের জন্য সরকারের একটি বড় প্রকল্প এ মডেল মসজিদ। এখানে নামাজের পাশাপাশি রয়েছে ইসলাম চর্চ্চার সকল সুযোগ সুবিধা। সাতক্ষীরা ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক মো: আবুল কালাম আজাদ জানান, বর্তমান সরকারের পদ্মা সেতু নির্মানের পরে দেশের মডেল মসজিদ সবচেয়ে দ্বিতীয় বৃহত্তর প্রকল্প। সারাদেশের মত সাতক্ষীরায় ৮ টি মডেল মসজিদ নির্মান করা হবে। এর মধ্যে দেবহাটা মডেল মসজিদটি নির্মান কাজ শেষ হয়েছে। অন্যদিকে আশাশুনি উপজেলায় মডেল মসজিদ নির্মান কাজ চলছে। সেখানে ইতিমধ্যে ৩০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। মডেল মসজিদে নামাজের পাশাপাশি ইসলাম চর্চ্চার কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হয়েছে।সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ূন কবির জানান, ইতিমধ্যে দেবহাটার মডেল মসজিদটি নির্মান কাজ শেষ হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্স এর মাধ্যমে এ মসজিদটি উদ্বোধন করবেন। এজন্য প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি পেলে খুব শীঘ্রই মসজিদটি উদ্বোধন করা হবে।