ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২ ফাল্গুন ১৪২৭

করোনায় ১৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৯৯

সেন্ট্রাল ডেস্ক
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৬:৪৩
আপডেট: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৪:২৬
করোনায় ১৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৯৯ ফাইল ছবি

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল আট হাজার ৩৭৪ জনে। এ সময়ে নতুন করে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৩৯৯ জন। ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে পাঁচ লাখ ৪৪ হাজার ১১৬ জনে।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, নতুন করে ভাইরাসটি থেকে মুক্ত হয়েছেন ৮২৮ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন চার লাখ ৯২ হাজার ৮৮৭ জন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ১২ হাজার ৬৯৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় রোগী শনাক্তের হার তিন দশমিক ১৩ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ১৮ জনের মধ্যে পুরুষ ১০ এবং নারী আট জন। এর মধ্যে দুজন ব্যতীত সবাই হাসপাতালে মারা গেছেন। বাকি দুজনের মৃত্যু হয়েছে বাসায়। এ পর্যন্ত মোট মারা যাওয়া আট হাজার ৩৭৪ জনের মধ্যে পুরুষ ছয় হাজার ৩৩৫ বাকি দুই হাজার ৩৯ জন নারী।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ৬০ বছরের বেশি ১০ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের দুজন, ৪১-৫০ বছরের এক জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের চার জন এবং ২১ থেকে ৩০ বছরের এক জন রয়েছেন।

৭ এপ্রিল থেকে করোনার টিকার দ্বিতীয় ডোজ

আগামী ৭ এপ্রিল থেকে করোনাভাইরাসের টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে এক সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘এ মাসে ৫০ লাখ টিকা পাওয়ার কথা থাকলেও পেয়েছি ২০ লাখ। অর্থাৎ এখানে একটি ঘাটতি হয়ে গেল। এ বিষয়ে আমরা সেরামের ওপর চাপ প্রয়োগ করেছি। এখানকার যারা সাপ্লায়ার, তাদের ওপরেও আমরা চাপ প্রয়োগ করেছি যে আপনারা এটা তাড়াতাড়ি মেকআপ করেন। এ পর্যন্ত ২৪ লাখের বেশি করোনা টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন এবং নিবন্ধন করেছে ৩৬ লাখ।’

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে দেশে ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ২৩ লক্ষাধিক মানুষ করোনা টিকা নিয়েছেন। দেশে সোমবার পর্যন্ত টিকার প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন ২৩ লাখ ৮ হাজার ১৫৭ জন। এর মধ্যে ১৫ লাখ ১৮ হাজার ৭১৫ জন পুরুষ এবং ৭ হাজার ৮৯ হাজার ৪৪২ জন নারী রয়েছেন।