ঢাকা শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯

পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি’র ঘটনায় ডাকাত সর্দার বান্না সুমন দু’দিনের রিমান্ডে

কান্ট্রি ডেস্ক
২৬ জুলাই ২০২২ ২২:৪৭
আপডেট: ১২ আগস্ট ২০২২ ০৫:৩৪
পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি’র ঘটনায় ডাকাত সর্দার বান্না সুমন দু’দিনের রিমান্ডে রিমান্ডের প্রথম দিনে খেলনা পিস্তল, পিস্তলের কাভার, হ্যান্ডকাফ, পুলিশ লেখা মার্কস, পুলিশের ভুয়া আইডি কার্ড উদ্ধার -সাতঘরিয়া।

 

শেখ আরিফুল ইসলাম আশা: পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতির অভিযোগে ৬ জনকে গ্রেপ্তারের ঘটনায় মঙ্গলবার আদালত মামলার প্রধান আসামি ডাকাত সরদার শরীফ হাসানুল বান্না কে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে। ডাকাতি মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা, সাতক্ষীরা সদর থানার ইন্সপেক্টর (ওসি অপারেশন) তারেক ফয়সাল ইবনে আজিজ আদালতে সাতদিনের রিমান্ড চাইলে আদালত দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। রিমান্ডের প্রথমদিন ২৬ জুলাই মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ডাকাত সরদার শরীফ হাসানুল বান্না সুমনকে নিয়ে শহরের উত্তর কাটিয়ার তার ভাড়া বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে জেলা ডিবি ও সদর থানা পুলিশ। অভিযানে ওই ভাড়া বাড়ি থেকে একটি খেলনা পিস্তল, পিস্তলের কাভার, হ্যান্ডকাফ, পুলিশ লেখা মাক্স, পুলিশের ভুয়া আইডি কার্ড ঝুলানো প্যান্ট ও প্রতারণা করে নেওয়া একটি ফ্রিজ ও একটি মহেন্দ্র উদ্ধার করা হয়। অভিযান শেষে ডাকাতি মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা, সাতক্ষীরা সদর থানার ইন্সপেক্টর (ওসি অপারেশন) তারেক ফয়সাল ইবনে আজিজ সাংবাদিকদের জানান, ডাকাত সরদার শরীফ হাসানুল বান্না সুমনের স্বিকারোক্তিতে অভিযান চালিয়ে ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত একটি খেলনা পিস্তল, পিস্তলের কাভার, হ্যান্ডকাফ, পুলিশ লেখা মার্কস, পুলিশের ভুয়া আইডি কার্ড ঝুলানো প্যান্ট ও প্রতারণা করে নেওয়া একটি ফ্রিজ ও একটি মহেন্দ্র উদ্ধার করা হয়েছে। তাকে আরো জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতির ঘটনায় জড়িতদের খুব দ্রুত আটক করে আইনের আওতায় আনা হবে। উল্লেখ্য, গত ২৩ তারিখ সাতক্ষীরা পৌরসভার মধুমোল্লারডাঙ্গী এলাকার গরু ব্যবসায়ী শেখ আনোয়ারুল ইসলাম ও তার ছেলে রিফাত হোসেন গরু বিক্রির ২ লাখ ৭০ হাজার টাকা নিয়ে বাড়িতে ফিরছিলেন। পথিমধ্যে যশোর-সাতক্ষীরা সড়কের ওয়ারিয়া পূজা মন্ডপের সামনে আসলে তাদেরকে গতিরোধ করে পুলিশ পরিচয়ে একদল ডাকাত। মাদকদ্রব্য থাকার মিথ্যা অভিযোগ তুলে তাদেরকে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে টাকা কেড়ে নেয় ডাকাতরা। ঝাউডাঙ্গা বাজার পার হয়ে বাবা শেখ আনোয়ারুল ইসলাম ও তার ছেলে রিফাত হোসেনকে মাইক্রোবাস থেকে তাদেরকে নামিয়ে দেওয়ার চেষ্টাকালে তাদের চিৎকারে স্থানীয়দের সহায়তায় ৫ ডাকাতকে আটক করে পুলিশ। তবে পালিয়ে যায় দলনেতা শরীফ হাসানুল বান্না। এঘটনায় ভুক্তভোগী শেখ আনোয়ারুল ইসলাম বাদি হয়ে সদর থানায় একটি মামলা করেন। যার নং-৫০। মামলার প্রধান আসামি দলনেতা শরীফ হাসানুল বান্নাকে সোমবার ভোরে সদর উপজেলার মাগুরা বৌ-বাজার এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। ডাকাতদের কাছ থেকে জব্দ করা হয় পুলিশের পোশাক, পরিচয়পত্র, বিদেশি পিস্তল, গুলি, হ্যান্ডক্যাপসহ ডাকাতির কাজে ব্যাবহৃত দুটি মোটরসাইকেল, নগত টাকা। গ্রেপ্তারকৃতরা আন্ত: জেলা ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য বলে জানান পুলিশ সুপার।

সর্বশেষ সবখবর